তারিখ : ২৫ মে ২০২০, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

করোনায় আক্রান্ত আরো ২,কোয়ারেন্টাইনে ১,৪১৩

করোনায় আক্রান্ত আরো ২,কোয়ারেন্টাইনে ১,৪১৩
[ভালুকা ডট কম : ০২ এপ্রিল]
দেশে নতুন করে দুজনের দেহে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে একজনের বয়স ৩০-৪০ ও অপরজনের ৭০-৮০ বছরের মধ্যে। আক্রান্ত দুজনই পুরুষ। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫৬ জনে।আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়মিত অনলাইন সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম (এমআইএস) শাখার পরিচালক ডা. হাবিবুর রহমান বলেন,কোভিড-১৯ সন্দেহে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে ১৪১ জনের নমুনা আমরা পরীক্ষা করেছি। এদের মধ্যে দুই জনকে করোনাভাইরাস আক্রান্ত হিসেবে আমরা শনাক্ত করতে পেরেছি। এই দুই জনসহ দেশে মোট ৫৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কোনো করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু ঘটেনি।

এমআইএস পরিচালক বলেন,করোনার অভিশাপ থেকে মুক্তি লাভ করার জন্য বিদেশফেরত ব্যক্তি এবং আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা সকলকে কোয়ারেন্টাইন করার কোনো বিকল্প নেই। আজ পর্যন্ত আমরা মোট ৬১ হাজার ৮৮০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন এবং ২৪৩ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন এবং সর্বমোট ৬২ হাজার ১২৭ জনকে কোয়ারেন্টাইন করেছি। গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৪০৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন ও নয় জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন করেছি। অর্থাৎ, ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টাইন সংখ্যা ১ হাজার ৪১৩। এ পর্যন্ত মোট ৪৫ হাজার ৪২৭ জনকে কোয়ারেন্টাইন মুক্ত করায় বর্তমানে ১৬ হাজার ৭০০ জন কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

তিনি জানান,বিদেশ থেকে যারা বিভিন্ন বিমানবন্দর, স্থলবন্দর, সমুদ্রবন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশ করেন, তাদের প্রত্যেককে আমরা স্ক্রিনিং করছি। কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে বিদেশ থেকে আগত ৬ লাখ ৬৬ হাজার ৯৩১ জন যাত্রীকে বিভিন্ন বিমানবন্দর, স্থলবন্দর ও সমুদ্রবন্দরে স্ক্রিনিং করেছি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪০১ জন দেশে প্রবেশ করেছেন। যাদের প্রত্যেককে স্ক্রিনিং করা হয়েছে।

হাবিবুর রহমান আরও বলেন,স্বাস্থ্য বাতায়নে (১৬২৬৩ এবং ৩৩৩) আমরা গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ বিষয়ক ৬৬ হাজার ৪৬৫টি ফোন পেয়েছি। এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্য বাতায়নে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত মোট ১০ লাখ ৪২ হাজার ৯৫২টি ফোন কল আমরা রিসিভ করেছি। আমরা ইতোমধ্যে ৩ লাখ ৫৭ হাজার ২৫০টি পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিতরণ করেছি এবং আমাদের কাছে পর্যাপ্ত পিপিই মজুদ রয়েছে। পিপিই সরবরাহ ও বিতরণ অব্যাহত আছে।

তিনি বলেন,পিসিআর পরীক্ষা বিভিন্ন ইনস্টিটিউটে সম্প্রসারিত করা হয়েছে। ঢাকায় ছয়টি এবং ঢাকার বাইরে চারটি প্রতিষ্ঠান পরীক্ষা করা ইতোমধ্যে শুরু করেছে। আজকে আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে একটি নির্দেশনা পেয়েছি। ইতোমধ্যে আমাদের মহাপরিচালক ঢাকাসহ প্রত্যেকটা বিভাগের পরিচালক এবং সব সিভিল সার্জনকে নির্দেশনা দিয়েছেন যেনো আজকের মধ্যে প্রত্যেকটি উপজেলা থেকে কমপক্ষে দুইটি করে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আমরা যেন আজকের ভেতরে অন্তত ১ হাজার নমুনা সংগ্রহ করতে পারি এবং আগামীকাল সেগুলো পরীক্ষা করতে পারি।

এমআইএস পরিচালক আরও বলেন,গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে পাঁচ জনকে আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট ৩৭৩ জনকে আইসোলেশন করা হয়েছিল। যাদের মধ্যে ২৯৫ জনকে ছেড়ে দেওয়ায় বর্তমানে মোট ৭৮ জন আইসোলেশনে রয়েছেন।

এদিকে, দেশ ডাক্তার ফাউ‌ন্ডেশন নামক একটি বেসরকারি সংস্থা জানিয়েছে, দে‌শে এই পর্যন্ত পাঁচজন চিকিৎসক ক‌রোনায় আক্রান্ত হ‌য়ে‌ছেন আর ক‌রোনা স‌ন্দে‌হে আই‌সোলশ‌নে আছেন আরো ৩০ জন চিকিৎসক। বাংলা‌দেশ ডক্টর ফাউ‌ন্ডেশ‌নের ট্রা‌স্টি‌ বো‌র্ডের ম্যা‌নে‌জিং ডি‌রেক্টর ডা.কাউসার গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, আক্রান্ত চিকিৎসকের মধ্যে সর্ব‌শেষ জন শনাক্ত হ‌য়ে‌ছেন প‌রিবা‌গে। ক‌রোনা ভাইরাস আক্রান্ত স‌ন্দে‌হে আই‌সো‌লেশ‌নে থাকা ত্রিশজন ডাক্তারে মধ্যে অনে‌কেই মে‌সে বা আলাদা বাসা নি‌য়ে থা‌কেন। বাংলা‌দেশ ডক্টর ফাউ‌ন্ডেশ‌নে আক্রান্ত চি‌কিৎসকদের সেবাও ছাড়াও খাবার এবং প্রয়োজনীয় সব কিছু সরবরাহ করছে।

নভেল করোনাভাইরাসের মহামারির মধ্যে আটকে পড়া জাপানের ৩২৭ জন নাগরিক বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি চাটার্ড ফ্লাইটে ঢাকা ত্যাগ করেছেন।আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টা ১৯ মিনিটে জাপানের নাগরিকদের নিয়ে ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ছেড়ে যায়। বাংলাদেশে অবস্থিত জাপান দূতাবাস তাদের নিজ দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে নিতে এ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করে।এর আগে যুক্তরাষ্ট্র, মালয়েশিয়া, ভুটানের নাগরিকরাও ঢাকা ত্যাগ করেছেন।

গত ৩০ মার্চ কাতার এয়ারওয়েজের একটি বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছেড়েছেন ২৬৯ মার্কিন নাগরিক। সেই ফ্লাইটে তাদের পোষা সাতটি কুকুরও ছিল।তার আগে ২৫ মার্চ রাতে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে মালয়েশিয়ার ২২৫ জন নাগরিক ঢাকা ত্যাগ করেন।এ ছাড়া ২৬ মার্চ সকালে দ্রুক এয়ারের দুটি বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছেড়েছেন ১৩৯ জন ভুটানী নাগরিক। ওই দুটি ফ্লাইটে ঢাকাস্থ ভুটান দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাসহ বাংলাদেশে অধ্যয়নরত দেশটির শিক্ষার্থীরাও ছিলেন।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অন্যান্য বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৫০ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই