তারিখ : ০৯ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁর শুটকি মাছ যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন জেলায়

নওগাঁর শুটকি মাছ যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন জেলায়
[ভালুকা ডট কম : ০৯ মার্চ]
উত্তরবঙ্গের মৎস্যভান্ডার হিসেবে পরিচিত নওগাঁর ঐতিহ্যবাহি উপজেলা আত্রাই। আত্রাইয়ের শুঁটকির চাহিদা রয়েছে দেশজুড়ে। তারই ধারাবাহিকতায় শুঁটকি তৈরিতে এখন চরম ব্যস্ত সময় পার করছেন উপজেলার শুঁটকি ব্যবসায়ীরা। আহসানগঞ্জ স্টেশন এলাকা জুড়ে এখন শুধু শুঁটকি তৈরীর ধুম পড়েছে।

গত বছরের বন্যায় উপজেলার নদী, বিভিন্ন পুকুর, জলাশয়, খাল-বিল পানিতে ডুবে যাওয়ায় মাছের বিচরণ হয়েছে অনেক বেশি। তাই জলাশয়গুলোতে ধরা পড়ছে দেশীয় প্রজাতির অনেক রকমারী মাছ। আর এ মাছগুলো প্রতিদিন সেই কাক ডাকা ভোর থেকে বিক্রি হচ্ছে আত্রাইয়ের রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন ঐতিহ্যবাহি মাছের আড়ৎ ও বাজারগুলোতে। এসব মাছ কিনে শুঁটকি তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন শুঁটকি পল্লীর ব্যবসায়ীরা। গত বছর এলাকায় বন্যা না হওয়ায় দেশীয় প্রজাতির মাছ প্রায় হারিয়েই গিয়েছিল। এ জন্য শুঁটকি ব্যবসায়ীরা ব্যাপক লোকসানের শিকার হয়ে আর্থিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সেই লোকসান পুষিয়ে নিতে এবার তারা কোমর বেঁধে শুঁটকি তৈরিতে ঝুকেঁ পড়েছে।

জানা যায়, উত্তর জনপদের মৎস্য ভান্ডার হিসাবে খ্যাত স্থান সমূহের মধ্যে আত্রাইও একটি খ্যাত স্থান। প্রতিদিন শত শত টন টন মাছ আত্রাই উপজেলা থেকে রেল, সড়ক ও নৌ পথে দেশের বিভিন্ন  জেলায় বাজারজাত করা হয়। সে অনুযায়ী শুঁটকি উৎপাদনেও আত্রাইয়ের যথেষ্ট প্রসিদ্ধ রয়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ উত্তরঞ্চলের রংপুর, নিলফামারী, সৈয়দপুর, কুড়িগ্রাম, দিনাজপুরসহ দেশের প্রায় ২০/২৫ জেলাতে বাজারজাত করা হয় আত্রাইয়েয়র শুঁটকি মাছ। আর এ মাছের শুঁটকি তৈরী করে জীবিকা নির্বাহ প্রায় শতাধিক পরিবার। উপজেলার ভরতেঁতুলিয়া গ্রাম শুঁটকি তৈরীতে বিশেষভাবে খ্যাত। এ গ্রামে শতাধিক শুঁটকি ব্যবসায়ী এ পেশার সাথে সম্পৃক্ত। শুধু বর্ষা মৌসুমে শুঁটকি তৈরী করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করে তারা পরিবারের সারা বছরের ভরণপোষন নিশ্চিত করেন। কিন্তু গত বছর বাজার মন্দা থাকায় এসব শুঁটকি ব্যবসায়ীরা হতাশ হয়ে পড়েছিলেন। কাঁচা মাছের আমদানী কম, বাজারে মূল্য বেশি অথচ শুঁটকির বাজারে ধস। সব কিছু মিলিয়ে তাদের গত বছরের চালান প্রতি লাভের স্থলে গুনতে হযেছিল অনেক লোকসান। মাছের ব্যাপক আমদানী, মূল্য কম এবং শুঁটকি বাজার মূল্য বেশি থাকায় তাদের চোখে-মুখে হাসির ঝলক ফুটে উঠেছে।

ভরতেঁতুলিয়া গ্রামের বিশিষ্ট শুঁটকি ব্যবসায়ী মঞ্জুর মোল্লা বলেন, শুঁটকি ব্যবসার সাথে আমি দীর্ঘদিন থেকে সম্পৃক্ত। শুঁটকি তৈরীতে অর্থ খরচের সাথে সাথে যথেষ্ট শ্রম ব্যয় হয়। আমাদের তৈরি শুঁটকি আত্রাই উপজেলাসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন জেলায়। এতে আমরাও লাভবান হচ্ছি।

শুঁটকি ব্যবসায়ী রাম, মাজেদুল, পচু, গেদা ও ছাত্তার বলেন, সর্বোপরি আমরা রোদ, বৃষ্টি ও মাছের র্দুগন্ধ সবকিছুকে উপেক্ষা করে পরিবার পরিজন নিয়ে এ পেশা চালিয়ে যাচ্ছি। দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্রাইয়ের শুঁটকির চাহিদা আছে। এবারের ব্যবসাটা লাভজনক হবে বলে আমরা আশাবাদি।

আত্রাই উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দেবনাথ বলেন আত্রাইয়ের শুটকি মাছের চাহিদা দেশজুড়ে। আমরা সরকারের পক্ষ থেকে শুটকি কাজের সঙ্গে জড়িতদের প্রতিবছরই প্রশিক্ষন প্রদান করে আসছি। কিভাবে মাছ শুটকি করলে মাছের গুনগতমান বজায় থাকাসহ দীর্ঘদিন সংরক্ষণ কিংবা বাজারজাত করা সম্ভব সে বিষয়ে আমরা জেলেদের সার্বক্ষণিক পরামর্শ দিয়ে আসছি। এছাড়াও এই কাজের সঙ্গে জড়িতদের বছরের অন্যান্য সময়ে আর্থিক সহযোগিতাসহ নানা সুযোগ-সুবিধা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।

নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো: ইসরাফিল আলম বলেন আমার নির্বাচনী এলাকা আত্রাই উপজেলা একটি প্রসিদ্ধ, ঐতিহাসিক ও ঐতিহ্যবাহি উপজেলা। এই উপজেলায় নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর-জলাশয়ের পরিমাণ অনেক বেশি হওয়াই এই উপজেলার অধিকাংশ মানুষই মাছের সঙ্গে জড়িত। দেশজুড়ে আত্রাই সুস্বাদু মাছের সুনাম রয়েছে। শুটকি মাছ তারই একটি অন্যতম উপকরন। বর্তমান সরকার এই উপজেলার শুটকি মাছের সঙ্গে জড়িতদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছে। আমিও এই শুটকি মাছের সঙ্গে জড়িত মানুষদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করে আসছি। কিভাবে এই শুটকি মাছের মান আরও উন্নত ও স্বাস্থ্যসম্মত করা যায় সেই বিষয়ে উন্নত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। আগামীতে এই শুটকি মাছকে দেশের বাহিরে রপ্তানি করে কিভাবে বেশি বেশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করা যায় সেই কর্মপরিকল্পনাও হাতে নেওয়া হয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অনুসন্ধানী প্রতিবেদন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২৩৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই