তারিখ : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় শিশু ধর্ষণ চেষ্টা মামলা করায়

নওগাঁয় শিশু ধর্ষণ চেষ্টা মামলা
[ভালুকা ডট কম : ০১ ডিসেম্বর]
নওগাঁর আত্রাইয়ে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার মামলা করায় হিন্দু সমাজপতিরা এক পরিবারকে ১০দিন ধরে একঘরে করে রেখেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আইনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে কতিপয় প্রভাবশালী সমাজপতি ও স্থানীয় দুই গ্রাম পুলিশের সমন্বয়ে এক সালিশী বৈঠকে সুমন চন্দ্র প্রামানিক নামের এক জনকে স্বপরিবারে একঘরে করার অলিখিত রায় ঘোষনা দিয়েছেন।

গ্রামের কেউ তার সাথে কথা বললে তাৎক্ষণিক ভাবে ৫হাজার টাকা ও সুমনের সাথে কাউকে কথা বলতে দেখা প্রত্যক্ষ স্বাক্ষীকে আড়াই হাজার টাকা দিয়ে পুরুস্কৃত করা হবে। সমাজপতিদের এমন কঠোর রায়ে সুমন চন্দ্র প্রামানিকের পরিবার এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সমাজপতিদের অত্যাচারে অসহায় হয়েও থানা পুলিশের কাছে যেতে পারছেনা।

জানা গেছে, আত্রাই উপজেলার সাহাগোলা ইউনিয়নের সুবর্ণকুন্ডু গ্রামের সুবিধা চন্দ্র প্রামানিকের ছেলে সুমন চন্দ্র প্রামানিকের শিশু কন্যাকে একই গ্রামের শ্রী জগনাথ প্রামানিকের ছেলে স্বপন কুমার (১৯) গত ৩সেপ্টেম্বর লবা প্রামানিকের বাড়ির পাশে অন্যান্য বাচ্চাদের সাথে খেলাধূলা করছিলো। এমন সময় স্বপন কুমার ওই শিশু কন্যাকে মোবাইলে ভিডিও দেখার নাম করে একটি খড়ের পালার পিছনে নিয়ে গিয়ে শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে স্বপন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয় নিয়ে ওই দিন তরিঘরি করে গোপনে এক গ্রাম্য সালিশে স্বপনকে চড়-থাপ্পর মেরে ধর্ষন চেষ্টার ঘটনাকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে ওই সমাজপতিরা।

বিষয়টি আত্রাই থানা পুলিশ গোপন সূত্রে জানতে পারলে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে স্বপনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এব্যাপারে শিশুটির বাবা সুমন চন্দ্র বাদী হয়ে স্বপনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করে। আসামী স্বপন চন্দ্র প্রায় ১মাস হাজত বাসের পর জামিনে বের হয়ে এসে সমাজপতিদের সাথে গোপন আঁতাত করে উল্টো ২২নভেম্বর শুক্রবার রাতে নিতাইয়ে খলিয়ানে ওই গ্রামের সমাজপতি খিতিষ, গ্রাম পুলিশ নিরাঞ্জন ও সুকুমারের নেতৃত্বে শিশুটির বাবা কেন থানায় মামলা করলো, এই অপরাধে এক গ্রাম্য সালিশী রায়ে তাকে ৭ দিন ধরে একঘরে করে রাখা হয়েছে। এমনকি ধর্মীয় কর্মকান্ড বন্ধ করে দেওয়াসহ সমাজের কেউ তার সাথে চলাফেরা ও কথাবার্তা বললে উপযুক্ত স্বাক্ষী প্রমান স্বাপেক্ষে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে।

সুবর্ণকুন্ডু গ্রামের সমাজপতি খিতিষ চন্দ্র জানান, সুমনকে আমরা একঘরে করে রাখিনি। তবে এই সমাজের লোকজন তার সাথে কথা বলবে কি বলবে না সেটা তাদের ব্যাপার।স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: শফিকুল ইসলাম জানান, কাউকে একঘরে করার বিধান নেই। সুমন কে একঘরে করা হয়েছে এটা আমার জানা নেই।আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ মোসলেম উদ্দিন মন্ডল জানান,  এমন ঘটনা আমার জানা নেই, তবে বিষয়টি অবশ্যই আমি দেখবো।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই