তারিখ : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

সখীপুরের সপ্তাহে কোটি টাকার কলা বেচাকেনা

সখীপুরের সপ্তাহে কোটি টাকার কলা বেচাকেনা
[ভালুকা ডট কম : ১৪ নভেম্বর]
টাঙ্গাইলের সবচেয়ে বড় কলার বাজার সখীপুর উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের কুতুবপুর বাজার। এ হাঁটে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা কলার বেপারীরা সপ্তাহে প্রায় কোটি টাকার কলা টাঙ্গাইল ও বিভাগীয় শহর ঢাকা, ময়মনসিংহ,চট্টগ্রাম,সিলেট এর আশপাশের জেলা উপজেলায় সরবরাহ করছেন।

প্রতি সপ্তাহে শনিবার বিকেল থেকে  রোববার সকাল  ১১টা পর্যন্ত এবং মঙ্গলবার বিকেল  থেকে বুধবার সকাল ১১টা পর্যন্ত উপজেলার, কুতুবপুর, বড়চওনা, দারিপাকা, শ্রীপুর, তৈলধারা, মুচারিয়া পাথার, ইছাদিঘী, শালগ্রামপুর পার্শ্ববতী ফুলবাড়িয়া উপজেলার গারোবাজার, ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘী, জোড়দিঘীসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকার কলার বাগান মালিকরা তাদের উৎপাদিত সবরি, হিমসাগর, অমৃত সাগর, বিচিকলাসহ বিভিন্ন প্রজাতির কলা এনে এ হাঁটে জমায়েত করেন।  জমায়েত হওয়া ওইসব করা সপ্তাহে দু’দিন  রোববার ও বুধবার সকাল থেকে রাত অবধি বেচাকেনা হয় । প্রতি কাঁদ (ছড়ি) কলা ১৫০ থেকে ৫০০ টাকা দরে সপ্তাহে ওই এ বাজারে ৫০/৬০টি ট্রাকে করে প্রায় কোটি টাকার কলা বেচাকেনা করা হচ্ছে।

ওই বাজারের কলা ব্যবসায়ী ইব্রাহিম, আবুল কালাম, ফজল মিয়াসহ অন্যরা জানান, কলার কাঁদের (ছড়ির)  ওপর নির্ভর করে দাম কমবেশি হয়ে থাকে। এখানকার কলার স্বাধ ও মান ভাল হওয়ায় সারাদেশে এর ব্যাপক চাহিদা  রয়েছে। যার ফলে এখানকার উৎপাদিত কলার দামও একটু বেশি। ছোট আকারে প্রতি কাঁদ (ছড়ি) ১৫০ টাকা, মধ্যম মানের কাঁদ ৩০০ টাকা এবং বড় আকৃতির কলা ও কাঁদ (ছড়ি) ৪৫০ থেকে ৫’শ টাকা ধরে বিক্রি হচ্ছে।

পাথারপুর গ্রামের কলাচাষি আবদুর রউফ মিয়া সাড়ে চার বিঘা জমিতে এক হাজার ৫শ’টি কলা গাছ লাগিয়েছেন। খরচ বাদে তিনি তার বাগান থেকে এ বছর প্রায় তিন লাখ টাকা মুনাফা পাবেন বলে জানানা।

কুতুবপুর বাজার বণিক সমিতির সভাপতি মো.  মজিবুর রহমান ফকির বলেন, সারা দেশেই এখানকার কলার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এ হাটে প্রতি সপ্তাহে প্রায় কোটি টাকার কলা ক্রয় করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে  সরবরাহ করেন বেপারীরা। তিনি বেপারীদের নিরাপত্তা ও কলার সংরগ্রহনাগার স্থাপনের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. নূরুল ইসলাম বলেন- মান ও স্বাধ ভাল থাকায় সারাদেশেই এখানকার উৎপাদিত কলার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।  আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবার কলার ফলন হয়েছে বাম্পার ।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

কৃষি/শিল্প বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২৮ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই