তারিখ : ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

গৌরীপুর আ.লীগের কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে গঠনের দাবি

গৌরীপুর উপজেলা আ.লীগের কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে গঠনের দাবি
[ভালুকা ডট কম : ১৮ অক্টোবর]
ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগসহ সকল ইউনিটের কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে গঠনের দাবি জানিয়েছে উপজেলার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ। শুক্রবার বিকালে উপজেলার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দের ব্যানারে গৌরীপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকুনুজ্জামান পল্লব। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতাকে আরো গতিশীল রাখতে দেশরত্ন শেখ হাসিনা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তৃণমূল ইউনিয়ন থেকে শুরু করে কেন্দ্র পর্যন্ত সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।  কিন্তু আমরা শোনতে পাচ্ছি কেউ কেউ ঊর্ধ্বতন আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দকে বোঝাতে চাচ্ছেন গৌরীপুর উপজেলায় সম্মেলন করার মতো পরিবেশ নেই। চলমান কমিটিগুলোকে অকার্যকর ব্যর্থ ও অযোগ্য বলে উপস্থাপন করে কেউ কেউ আহ্বায়ক কমিটি গঠনে সক্রিয় আছেন। আমরা দৃঢ়তার সাথে তার প্রতিবাদ জানাই। কেন্দ্র ও জেলা নেতৃবৃন্দের কাছে আমাদের প্রাণের দাবি সম্মেলনের মাধ্যমে গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ শাখা ও তার সকল ইউনিট কমিটি গঠন করা হোক।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সহনাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহিদাস আচার্য্য, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন, বোকাইনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম, ডৌহাখলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল হক সরকার, রামগোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রুকুনজ্জামান পল্লব, মাওহা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ কালন, অচিন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম অন্তুর প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, ২০০৩ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর  ত্রিবার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ৬৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন হয়। ওই কমিটিতে সভাপতি পদে ডা. ক্যাপ্টেন (অব) মজিবুর রহমান ফকির ও সাধারণ সম্পাদক পদে বিধু ভূষণ দাস নির্বাচিত হন। ২০১৬ সালের ২ মে ডা. ক্যাপ্টেন (অব) মজিবুর রহমান ফকিরের মৃত্যু হলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পান সিনিয়র সহসভাপতি ডা. হেলাল উদ্দিন।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই