তারিখ : ২২ জুলাই ২০১৯, সোমবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

নওগাঁয় জাল টাকা তৈরীর মেশিনসহ প্রতারক আটক

নওগাঁয় জাল টাকা তৈরীর মেশিনসহ প্রতারক আটক
[ভালুকা ডট কম : ১৯ জুন]
নওগাঁ শহরের মেরীগোল্ড পাড়া মহল্লা থেকে জাল টাকা তৈরীর মেশিনসহ শাহীন আলম নামে এক প্রতারকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নওগাঁ সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। এসময় ২ লাখ ৩২ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করা হয়। আটক শাহীন আলম জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর থানার গোপীনাথপুর গ্রামের বাসিন্দা।

সে বেশ কিছুদিন যাবত নওগাঁ মেরীগোল্ড পাড়া মহল্লায় আশরাফ আলীর বাসায় ভাড়া থেকে বসবাস করছিলো। সেখানেই তৈরী করে আসছিলো জাল নোট।  বুধবার বেলা ১১ টার দিকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে নওগাঁর পুলিশ সুপার মো: ইকবাল হোসেন সাংবাদিকদের কাছে অভিযানের বিস্তারিত তুলে ধরেন। এসময় সদর থানার ওসি মো: সরোয়ার্দি হোসেন ও অন্যান্য কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর থানার ওসি সোহরাওয়ার্দীর নেতৃত্বে শহরের পার নওগাঁ বৌবাজার এলাকায় অভিযানে নামে সদর থানা পুলিশ। এসময় জাল নোটসহ শাহীনকে আটক করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আটক শাহীনের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। সেখানে জাল টাকার নোট তৈরীর মেশিন- কম্পিউটার, প্রিন্টার ও স্ক্যানারসহ অন্যান্য সঞ্জামাদি উদ্বার হয়। সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ জানায়, আটক শাহীনের বাড়ি থেকে ১০০ টাকার ৭৭ হাজার ১০০ টাকা ও ৫০০ টাকার ১ লাখ ৪৭ হাজার  টাকার জাল নোটসহ মোট ২ লাখ ৩২ হাজার টাকার জাল নোট উদ্ধার করে অভিযানকারীরা।

নওগাঁর পুলিশ সুপার ইকবাল জানান, আটকের পর শাহীন জাল টাকা তৈরীর কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। এ বিষয়ে নওগাঁ সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটক শাহীনকে আদালতের সোপর্দ করা হয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

অপরাধ জগত বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৮৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই