তারিখ : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকায় জমি বিক্রি করার পর প্রকল্প কাজে বাঁধা

ভালুকায় জমি বিক্রি করার পর প্রকল্প কাজে বাঁধা   
[ভালুকা ডট কম : ১৯ নভেম্বর]
ভালুকা ও সীমান্তবর্তী গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার ৪টি মৌজায় ভালুকা উপজেলা কাশর গ্রামের হাজী বেলাল ফকির গত এক বছর পূর্বে ৭০ বিঘা জমি সাফ কবলা দলিল মূলে ক্রয় করেন। বিক্রিত জমির আংশিক জমি দাতা সাইদুর রহমানের নেতৃত্বে প্রকল্পে কাজে বাঁধা দেয়। এঘটনায় ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ৩ জনকে আটক করে।

অভিযোগে জানা যায়, হাজী বেলাল ফকির ভালুকা উপজেলার কাচিনা ও পাড়াগাঁও, শ্রীপুর উপজেলার শৈলাট ও গাজীপুর মৌজায় সাইদুর রহমান, গোলাম মোস্তফা, ফরহাদ, শওকত আলীর কাছ থেকে ৭০ বিঘা জমি ক্রয় করেন। গত কয়েকদিন যাবৎ ওই প্রকল্পের জমিতে সীমানা পিলারের কাছ করার সময় জমি দাতা সাইদুর রহমানের নেতৃত্বে কাজে বাঁধা দেয়। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বেলাল ফকির তার প্রকল্পের কাজ দেখা শোনা করতে গেলে সাইদুরের নেতৃত্বে হাজী বেলাল ফকিরের উপর চড়াও হয়। এসময় ভালুকা মডেল থানা পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে বারেক, ওয়াদুদ, ইব্রাহিমকে আটক করে নিয়ে আসে। শনিবার দিন থানা থেকে মুচলিকা দিয়ে তাঁরা ছাড়া পেয়ে যায়।

হাজী বেলাল ফকির অভিযোগ করেন, ফরহাদ, মোস্তফা, জলিল কসাইয়ের বিরুদ্ধে হত্যা রাহাজানি ও প্রতারণার বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। সাইদুর রহমান তাদেরকে দিয়ে ওই বিক্রিত জমিতে কাজে বাঁধা দিচ্ছে।

সাইদুর রহমান বলেন, ভালুকা কাচিনা মৌজার একটি গর্ত থেকে পানি সেচা কে কেন্দ্র করে গত শুক্রবার দুজনের মাঝে দ্বন্দ্ব হয় ওই গর্তের জমি আমি বেলাল ফকিরের কাছে বিক্রি করি নাই। শ্রীপুর থানার এস, আই মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে আমি উভয় পক্ষকে থানায় ডাকলেও জমি দাতাগণ থানায় উপস্থিত হয়নি।#



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ভালুকা বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৪৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই