তারিখ : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮, রবিবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভালুকা থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হাজী রফিকের বর্ণাঢ্য জীবন

ভালুকা থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী হাজী রফিকের বর্ণাঢ্য জীবন
[ভালুকা ডট কম : ১৫ জুলাই]
আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক জামিরদিয়া মাস্টারবাড়ি এলাকার সম্ভ্রান্ত আব্দুল গনি মাস্টার পরিবারে ১৯৭১ সালে জন্ম গ্রহন করেন। তার পিতা নাম মরহুম হাজী মতিউর রহমান, মাতা আলহাজ্ব মোছাঃ আমেনা খাতুন। ৩ ভাই ও  ৪বোনের মাঝে আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক সবার ছোট। বড় ভাই আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ আসপাডা পরিবেশ উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সফল ব্যবসায়ী। মেঝো ভাই আব্দুর রহিম তিনিও সফল ব্যবসায়ী ও সাবেক হবিরবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক আজীবন দাতা হিসাবে রয়েছেন, হবিরবাড়ি ইউনিয়ন সোনারবাংলা উচ্চ বিদ্যালয়, পাড়াগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়, বাটাজোর সোনার বাংলা মহা-বিদ্যালয়, মল্লিকবাড়ি শহীদ নাজিম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়, প্রতিষ্ঠাতা দাতা সদস্য আব্দুল গনি উচ্চ বিদ্যালয়, পাশ্ববর্তী শ্রীপুর উপজেলার আব্দুল আউয়াল ডিগি কলেজের বিদ্যুতসাহী সদস্য। হাজী রফিক বিকাশের ৩ উপজেলার ডিস্টিভিউটর এবং স্কয়ার গ্রুপের অন্যতম ব্যবসায়ী, শিক্ষানুরাগি। তিনি আব্দুল গনি একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও আব্দুল গনি বৃত্তি ফাউন্ডেশনের দাতা। প্রতি বছর এ ফাউন্ডেশন থেকে শতাধিক মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি দেয়া হয় এবং ডাকাতিয়া শহীদ স্মৃতি বৃত্তি ফাউন্ডেশনের আজীবন পৃষ্টপোষক।

আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম এর বড় মেয়ে উম্মে হাফসা হিরা মেডিকেল কলেজ পড়ুয়া ও ছোট মেয়ে মিসহাত ফাহমিদা রিমঝিম ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ও স্ত্রী মাহমুদা আক্তার হবিরবাড়ী ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের ডেপুটি কমান্ডার লাল মাহমুদ সরকারের কন্যা। তিনি পৌর আওয়ামীযুবলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন সুহেল এর চাচা।

এই ব্যবসায়ী,শিক্ষানুরাগি,জেলা আ’লীগের নেতা হাজী রফিকুল ইসলাম আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৫৬ ময়মনসিংহ, ভালুকা-১১ আসন থেকে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। ভালুকা উপজেলার শিল্প এলাকা হিসাবে পরিচিত ১০নং হবিরবাড়ি ইউনিয়ন জমিরদিয়া গ্রামের আওয়ামী পরিবারের কৃতি সন্তান সমাজ সেবক, শিক্ষানুরাগি ও দ্বানবীর হিসাবে পরিচত একজন সফল ব্যবসায়ী তিনি। আ’লীগ থেকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে নিজেকে ঘোষণা করে উপজেলার প্রত্যান্তঞ্চলে গণসংযোগ করে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যে তিনি এলাকায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করে জ্ঞানের আলো বিস্তারে বিশেষ ভূমিকা রেখে চলেছেন। হবিরবাড়ি ইউনিয়ন সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মসজিদ,মাদ্রাসা,এমিখানা, স্কুল, কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন মূলক কাজ করে বেশ অবদান রেখেছেন।  হবিরবাড়ি ইউনিয়ন সহ আশপাশের উপজেলার বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে সব ধরণের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে আসছেন। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের একজন স্বক্রিয় কর্মী এবং আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাবেক আহবায়ক হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

আলহাজ্ব মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক বলেন আমি বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে নিরলস ভাবে উপজেলার প্রত্যান্তঞ্চলে নৌকার জন্য ভোট প্রার্থনা করে গণসংযোগ করে যাচ্ছি। ভালুকা উপজেলার সকল মানুষের সুখে দুঃখে তাদের পাশে ছিলাম, আছি, আগামী দিনেও থাকব এবং দল থেকে আমাকে প্রার্থী হিসাবে মনোনিত করলে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হবো “ইনশাল্লাহ”। সরকারের উন্নয়নের দূরদর্শী চিন্তাকে বাস্তবে রূপ দিতে ও ভিশন ২০৪১ কে সফল করতে ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে  দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দলীয় নেতাকর্মী ও উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছেন। #



সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

ব্যাক্তিত্ব বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৫৪৩ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই